আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন এবং সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আমরা খুব কম লোকই সত্য কথা বলি। বিশেষ করে যারা রাজনীতিতে সম্পৃক্ত আছি এখানে সৎ লোকের সংখ্যা খুব কম। সোমবার সচিবালয়ে সমসাময়িক বিষয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়ের সময় তিনি এসব কথা বলেন।

এ দেশে সততার সাথে কাজ করা কঠিন উল্লেখ করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমরা সবাই সৎ হলে দেশের চেহারাটা আজ বদলে যেত। আমাদের এখানে অবকাঠামোগত উন্নয়ন আশাতিরিক্ত হয়েছে। কিন্তু ডিসিপ্লিনের অভাবে এর সুফল আমরা জনগণের কাছে পৌঁছাতে পারিনি। পরিবহন ও সড়কে শৃঙ্খলার বড়ই অভাব রয়েছে এখানে। আমাদের এখন সবচেয়ে বড় সমস্যাই হচ্ছে এ শৃঙ্খলা।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ’শৃঙ্খলার সঙ্কট যদি আমরা কাটাতে পারি, তাহলে এ দেশে যোগাযোগ ব্যবস্থায় অনেক স্বস্তি আসবে।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, এত কথা বলার পরও এখনো অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়ার অভিযোগ আছে। মালিকরা একটা বিষয় বলার চেষ্টা করেছে, আসার পথে তারা খালি আসে। আমি বলেছি, আপনারা ঈদের সময়টায় আয়ের বিষয়টি একটা সংযমের সঙ্গে করবেন।’

সড়কের ঈদযাত্রার বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, ’ঈদযাত্রা এর আগে এত স্বস্তিদায়ক হয়নি। কোথাও থেকে বড় ধরনের যানজটের খবর পাইনি। আজকে একটু চাপ বাড়বে গার্মেন্টস ছুটির পর বিকেলে। বৃষ্টি-বাদল হলে যানবাহনের ধীর গতি হতে পারে। এমনটাই সবাই বিশ্বাস করেন।’

তিনি আরও বলেন, ’এখন ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম ৪ ঘণ্টায় যাচ্ছে। আমরা বহুদিন পর স্বস্তির জায়গায় এসেছি। এই স্বস্তিদায়ক যাত্রা আগামী দিনেও রাখতে চাই। শুধু ঈদ কেন, সারা বছরই রাস্তায় স্বস্তি থাকবে, এটাই জনগণ আশা করে।’

আওয়ামী লীগ সম্পাদক বলেন, সব কথায় যেমন কাজ হয়না, তেমনি সবসময় সত্য কথাও আমরা বলিনা। যদি হতো তাহলে বাংলাদেশে আজ সোনার বাংলায় রুপ নিত।