বলিউডের অন্যতম আলচিত নায়ক শাহিদ কাপুর, শাহিদকে গণমাধ্যমে অন্যতম আকর্ষণীয় ভারতীয় সেলিব্রিটি হিসেবে গণ্য করা হয়।শাহিদ, মীরা দম্পতি এই মুহূর্তে বলিউডের অন্যতম হ্যাপি ফ্যামিলি।নিজের কর্মজীবনে একাধিক চড়াই-উতরাই পার হয়েও তিনি নিজের জনপ্রিয়তা ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছেন।



ভারতের জনপ্রিয় ম্যাগাজিন ভোগ ইন্ডিয়ার ওয়েডিং বুক-এ সম্প্রতি যুগলে দেখা গেছে বলিউড অভিনেতা শাহিদ কাপুর এবং তার স্ত্রী মীরা রাজপুতকে। এই ম্যাগাজিনকে দেয়া একটি সাক্ষাৎকারে শাহিদ জানান, বিয়ের আগে প্রথমবার মীরার সঙ্গে দেখা করে কী মনে হয়েছিল তার।

২০১৫ সালে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়েছিল শাহিদ-মীরার। তাদের প্রথম সাক্ষাৎ ২০১৪ সালে। বয়সে ১৩ বছরের ছোট দিল্লিবাসী মীরাকে বিয়ের জন্য দেখতে যাওয়ার সেদিনের অভিজ্ঞতা কেমন ছিল শাহিদের?



অভিনেতা বলেন, ’একটা বড় ঘরের পেল্লাই সাইজের দুটো সোফায় আমরা বসেছিলাম। ঘরে তৃতীয় কেউ ছিল না। শুরুতে মনে হচ্ছিল ১৫ মিনিটও কী কথা চালিয়ে যেতে পারব আমরা! কিন্তু জানলে অবাক হবেন, আমাদের কথা মুহূর্তে আড্ডায় পরিণত হয়েছিল এবং তা চলেছিল টানা সাত ঘন্টা!’

অন্যদিকে একজন বলিউড তারকার সঙ্গে বিয়ে হবে জেনে কী মনে হয়েছিল মীরার? তিনি বলেন, ’আমি কোনোদিনই বলিউড নিয়ে বিশেষ আগ্রহী ছিলাম না। সেটাই সবচেয়ে ভালো ছিল। প্রথম কথা বলার পর একে অপরকে জানা শুরু করি আমরা। যেমন তেমন ভাবেই একে অপরকে চিনি। বাইরের দুনিয়া কীভাবে শাহিদকে চেনে তার প্রভাব কখনোই পড়েনি।

উল্লেখ্য,কারিনা কাপুর ও শহীদ কাপুর। দু’জনই বলিউড তারকা, তাদের প্রেম কাহিনি কারোরই অজানা নয় তবে এক সময় তাদের এই প্রেমের ইতি ঘটে, সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার পর ২০১৫ সালে মীরা রাজপুতকে বিয়ে করেন শহিদ কাপুর