বর্তমানে বাংলাদেশের টক অফ দা টাউন হচ্ছে কচুরিপানা ইস্যু।সম্প্রতি পরিকল্পনামন্ত্রীর এক বক্তব্যে কচুরিপানা জনগণকে খাওয়ানোর বিষয়টি স্পষ্টভাবে প্রকাশ পায় আর সেখান থেকেই ঘটে বিপত্তি। সোশ্যাল মিডিয়া থেকে শুরু করে সবখানেই ব্যাপক আলোড়ন ওঠে এই কচুরিপানা ইস্যুকে কেন্দ্র করে। বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম গুলোতে কচুরিপানা কিভাবে খাওয়া যায় এবং তা রান্নার উপকরণ সহ বিভিন্ন প্রকার খবর প্রচার করতে শুরু করে এমনকি সম্প্রতি একটা ভিডিওতে এক যুবকের কচুরিপানা চিবিয়ে খাওয়ার দৃশ্য দেখতে পাওয়া যায়

আরো পড়ুন

Error: No articles to display






কচুরিপানা খাওয়া যাবে কি যাবে না এনিয়ে বিতর্কের মধ্যেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কচুরিপানা খাওয়ার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। ভিডিওতে একজন যুবককে কচুরিপনা খেতে দেখা যাচ্ছে। যা নিয়ে আবার নানা মন্তব্য করছেন নেটিজেনরা।

তবে এবার কচুরিপানা খাওয়া নিয়ে নিজের ফেসবুট অ্যাকাউন্টে স্ট্যাটাস দিয়েছেন বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতা মুহাম্মদ রাশেদ খাঁন। পাঠকদের সুবিধার্থে তার স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো...

’জনগণ কচুরিপানা খাবে না, মন্ত্রীরা খাওয়ায়েই ছাড়বে।

তারা হয়তো ভুলে গেছে, দেশভেদে খাবারের ভিন্নতা পৃথিবী সৃষ্টির পর থেকে। বাঙালিরা মাছ ভাত, ডাল, সবজি খেয়ে অভ্যস্ত। কিভাবে গবেষণা করে এইসব খাবারের উৎপাদন বাড়ানোর কথা বলবে, তা না তারা কচুরিপানা নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে।

কচুরিপানার উত্তম ব্যবহার যে এই দেশে হয়, তারা হয়তো জানে না। নদী, খাল বিলে পাটের যে জাগ দেয়া হয়, সেটার জন্য কচুরিপানা লাগে। বরং অনেকসময় পাট জাগ দেয়ার জন্য যে পরিমাণ কচুরিপানা লাগে, তা কৃষকরা খুঁজে পায় না। আবার আজকাল কচুরিপানা উপর ভাসমান পদ্ধতিতে সবজি চাষ হচ্ছে।

আপনারা কচুরিপানা খাওয়ার গবেষণার জন্য যে টাকা ব্যয় করবেন, সেটা ধান, গম, সবজি, মাছ, চাল, সবজির পিছনে ব্যয় করুন। এগুলো আমাদের কমন খাদ্য। বাঙালিরা এখন পেটে ভাত দিয়ে বেঁচে থাকতে চায়। দেশের সার্বিক পরিস্থিতি উন্নত হলে, তখন অকাজের জিনিসের পিছনে গবেষণা কইরেন। আগে জনগণকে বাঁচান, এরপর বিলাসিতা.....’






বর্তমানে বাংলাদেশের আলোচিত বিষয় গুলোর মধ্যে একটি হচ্ছে পরিকল্পনামন্ত্রীর একটি বক্তব্য। সম্প্রতি তিনি কৃষি কর্মকর্তাদের একটি অনুষ্ঠানে গিয়ে জনগণকে কচুরিপানা খাওয়ার জন্য বলেছিলেন। মূলত তারপর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়া এবং বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় এ খবরটি ব্যাপকভাবে বিস্তার লাভ করে। তার বক্তব্যে অনেকটাই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সাধারন মানুষরা। তার বক্তব্যে তিনি বলেছেন গরু যদি কচুরিপানা খেতে পারে তাহলে সাধারণ জনগণ কেন খেতে পারবে না

News Page Below Ad

আরো পড়ুন

Error: No articles to display