সারা দেশে চলছে অবৈধ জুয়ার ব্যবসা যা সমাজবিরোধি এবং ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ থেকে কঠোর নিষেধাজ্ঞা আছে। ১৯৭২ সালের সংবিধানে জুয়া বন্ধের বিষয়ে কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য রাষ্ট্রকে নির্দেশনা দেওয়া আছে আইনজীবীরা বলছেন, বাংলাদেশে জুয়া বিষয়ক ইস্যুতে যে আইনটি অনুসরণ করার কথা, সেটি দেড়শ বছরেরও বেশী পুরনো।এছাড়া সরকারের নিষেধাজ্ঞাকে অমান্য করে কিছু অসাধু ব্যক্তি জুয়ার আসর ক্যাসিনো জমিয়ে কোটি কোটি টাকার মালিক হয়েছেন



রাজধানীসহ সারাদেশে যখন মাদক, জুয়া, ক্যাসিনো ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে অভিযানে চালাচ্ছে প্রশাসন, এই অভিযানে যখন সরকার দলের অনেক নেতা ধরা পড়েছে এবং সরকার সব মহলে প্রশংসিত হচ্ছে তখন এই অভিযানকে কটাক্ষ করেছেন আওয়ামী লীগের এক নেতা।

যিনি চলমান এই অভিযানকে কটাক্ষ করেছেন তিনি ঢাকা মহানগর উত্তরের মোহাম্মদপুর থানাধীন ৩৩ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক সাইফুর রহমান ইমন। অভিযানকে কটাক্ষ করা একটা ফেসবুক স্ক্রিনশট ফাঁস হয়েছে।

সাইফুর রহমান ইমন নামের এই আওয়ামী লীগ নেতার ফেসবুক আইডি এস আর ইমন। ফাঁস হওয়া স্ক্রিনশটটি তার কথিত মেয়ে বন্ধুর সঙ্গে কথোপকথন ছিল। স্ক্রিনশটে তার কথিত মেয়ে বন্ধু ইমনকে প্রশ্ন করেন, আপনাদের নেত্রী তো অ্যাকশন শুরু করছে দলের ভেতর..।

জবাবে ইমন বলেন, হ ... ফালাইবো। নিজের পোলা মাইয়া আর আত্মীয় স্বজন দেশটারে লুটপাট করতেছে হেইডার খবর নাই। নিজেগো আকাম-কুকাম ঢাকতে এখন আমাগো মতো লোকজনের ওপর অত্যাচার শুরু করছে।\’

গত মঙ্গলবার \’বাংলার চোর\’ নামের এক ফেসবুক পেজ থেকে এই চ্যাটিংয়ের স্ক্রিনশটগুলো ফাঁস করা হয়। এতে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগসহ সর্বস্তরে নানা ধরনের আলোচনা-সমালোচনা চলছে। স্ক্রিনশট ফাঁসের ব্যাপারে বক্তব্যের জন্য সাইফুর রহমান ইমনকে ফোন দেয়া হলে তার নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়।

পরে তার বাবা ও মোহাম্মদপুর থানা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম ওহিদুর রহমান এ ব্যাপারে বলেন, দলের ভিতরে নিজেদের অনেক শত্রু থাকতে পারে। সে ওদের ষড়যন্ত্রের শিকার।




উল্লেখ্য, মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান চলছে সারাদেশে। একের পর এক দুর্নীতি গ্রস্থ নেতাদের গ্রেফতার করা হচ্ছে এই অভিযানে। আর বলা যেতে পারে প্রাথমিকভাবে বেশ সফলভাবেই চলছে এই অভিযান। ক্যাসিনো ব্যবসা থেকে শুরু করে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করা মানুষগুলো হচ্ছে গ্রেফতার। আর এই শুদ্ধি অভিযানে অংশ নিয়েছে দেশের আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর পুলিশ ও র‍্যাব।