সুপারি, তাল বা নারিকেল গাছ থেকে ফল পেড়ে আনা যে খুব একটা সহজ কাজ নয়, তা মেনে নেবেন প্রায় সকলেই। যদিও যাঁরা নিয়মিত এ কাজ করেন তাঁদের হয়তো অভ্যেস হয়ে গেছে, কিন্তু তবু, অভ্যেসের পরেও সে কাজ বেশ পরিশ্রমসাধ্য। ঝুঁকিপূর্ণ তো বটেই। বেশ সময় ও সাবধানতার সাথে করতে হয় এই কাজ, পা পিছলে নিয়ন্ত্রণ হারালেই চরম বিপদ। কালেরকন্ঠ
কিন্তু যদি এমন হতো, আপনি চেপে বসলেন একটা মোটরবাইকে, আর সেই বাইক আপনাকে পৌঁছে দিচ্ছে নারিকেল গাছের চূড়ায়, কতই না মজার হতো বিষয়টা! এটা কিন্তু এখন আর মোটেও অলীক কল্পনা বা অবাস্তব ভাবনা নয়। কারণ বাস্তবে এমনই একটি অভিনব ’বাইক’ বানিয়ে ফেলেছেন এক ভারতীয় কৃষক!

এ বার থেকে নারিকেল বা সুপুরি বা তাল গাছে ওঠা যাবে এই নতুন বাইকে চেপেই। ভারতীয় এই কৃষকের নিজের তৈরি ছোট্ট এবং অন্যরকম বাইকে চেপে এখন সহজেই গাছে উঠতে পারবেন কৃষকেরা, চাইলে আপনিও।
বাইকটিতে চড়ে গাছে ওঠার ভিডিও তার ট্যুইটার হ্যান্ডেলে শেয়ার করেছেন এক সোশাল মিডিয়ায় ব্যবহারকারী। ভিডিওটি শেয়ার করে তিনি তাঁর ক্যাপশনে লিখেছেন, যখন আপনি মনেপ্রাণে একজন বাইকার হতে চান কিন্তু পরিবারের চাপে আপনাকে কৃষক হতে হয়, তখন এ ভাবেও হয়তো সাধপূরণ সম্ভব।

ট্যুইটারচারীর এই লেখাটা মজা করে হলেও, বিষয়টি কিন্তু মোটেও মজার নয়। বরং খুবই অভিনব। যে কৃষক এটি বানিয়েছেন, তিনি জানাচ্ছেন, অন্য কৃষকদের পরিশ্রম কমাতেই এমন ভাবনা মাথায় আসে তার।
সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, এক ব্যক্তি বাইকের মতো ছোট্ট মেশিনটির দুই দিকে পা রেখে বসছেন। মেশিনের হ্যান্ডেলটি জড়িয়ে রয়েছে সুপারি গাছের গুঁড়িকে। অ্যাকসিলেটরে চাপ দিতেই ওপরের দিকে উঠে যাচ্ছে সেই বাইক। সহজেই পৌঁছে যাচ্ছে গাছের চূড়ায়। নির্দিষ্ট গতিতেই আবার নিচে ফিরেও আসছে বাইকটি।

কৃষকের তৈরি এমন অত্যাধুনিক বাইক প্রশংসা কুড়াচ্ছে সকবার। অনেকেই বলছেন, এখন যে কেউই উঁচু গাছে চড়তে পারবেন। কিন্তু কোথাকার, কোন কৃষক এমন কাণ্ড ঘটিয়েছেন, তা অবশ্য জানা যায়নি ওই ভিডিও থেকে।
মোবাইলফোনে যাঁরা এই প্রতিবেদন পড়ছেন, তাঁরা ভিডিওটির লিঙ্ক না-ও পেতে পারেন। সে ক্ষেত্রে ব্রাউজারের সেটিংস এ গিয়ে ডেস্কটপ ভিউ চালু করে নেবেন।]